Blog

বাংলাদেশের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ গড়ার পেছনে রয়েছে তার তরুণ প্রজন্মের সৃজনশীলতা ও উদ্যম। তবে কাগজে-কলমে লেখা ব্যবসায়িক পরিকল্পনা কিংবা উদ্ভাবনী ধারণাগুলোকে বাস্তবে সফল উদ্যোগে পরিণত করতে প্রয়োজন দক্ষতা ও নির্দেশনা। উদ্ভাবনী চিন্তাধারা ও উদ্যমশীলতা দিয়ে তারাই দেশের ভবিষ্যৎ গড়ে তুলবে। এই লক্ষ্যকে সামনে রেখে চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় যৌথভাবে কাজ করবে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল  ইউনিভার্সিটির (ডিআইইউ) ইনোভেশন এন্ড এন্ট্রেপ্রেনিউরশিপ ডিপার্টমেন্ট এবং ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল প্রফেশনাল ট্রেনিং ইনস্টিটিউট (দীপ্তি)। এই সমঝোতা স্মারকের মাধ্যমে তারা তরুণ প্রজন্মকে দক্ষ উদ্যোক্তায় রূপান্তরিত করতে এবং দেশের উদ্যোক্তা সংস্কৃতির বিকাশে কাজ করবে।

উক্ত চুক্তি সম্পাদন অনুষ্ঠানে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল প্রফেশনাল ট্রেনিং ইনস্টিটিউটের (দীপ্তি)’র পক্ষে নির্বাহী পরিচালক জনাব রথীন্দ্রনাথ দাস ও সহকারী পরিচালক মোঃ কামরুল হাসান আফসারী এবং ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল  ইউনিভার্সিটির (DIU) ইনোভেশন এন্ড এন্ট্রেপ্রেনিউরশিপ ডিপার্টমেন্টর পক্ষে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ব্যবসা ও উদ্যোক্তা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডক্টর মোহাম্মদ মাসুম ইকবাল ও বিভাগীয় প্রধান সহকারি অধ্যাপক মোঃ কাম্রুজ্জামান।  

উদ্যোগের লক্ষ্য:

  • তরুণদের মধ্যে উদ্যোক্তা মনোভাব ও নতুন চিন্তাধারার বিকাশ
  • ব্যবসায়িক ধারণা তৈরি ও বাস্তবায়নের দক্ষতা বৃদ্ধি
  • দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে অবদান রাখা
  • প্রশিক্ষণ:  উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান করবে।
  • কর্মশালা: বিভিন্ন বিষয়ে কর্মশালা আয়োজন করা হবে যা শিক্ষার্থীদের ব্যবসায়িক ধারণা তৈরি ও বাস্তবায়নে সহায়তা করবে।
  • মেন্টরশিপ: অভিজ্ঞ উদ্যোক্তারা শিক্ষার্থীদের মেন্টর হিসেবে কাজ করবেন এবং তাদের ব্যবসায়িক পরিকল্পনা তৈরি ও বাস্তবায়নে সহায়তা করবেন।
  • ব্যবসায়িক প্রতিযোগিতা: শিক্ষার্থীদের জন্য ব্যবসায়িক প্রতিযোগিতা আয়োজন করা হবে।
  • আইডিয়া পিচিং ইভেন্ট: শিক্ষার্থীদের তাদের ব্যবসায়িক ধারণা বিনিয়োগকারীদের সামনে উপস্থাপন করার সুযোগ করে দেওয়া হবে।

Leave a Reply