Blog

🔵 বর্তমান সময়ে ডিজিটাল মার্কেটিং- এর চাহিদা অত্যন্ত জনপ্রিয়। ডিজিটাল মার্কেটিং একক কোনো ক্ষেত্র নয়। বরং বিভিন্ন ডিজিটাল চ্যানেল বা মাধ্যমে কোনো প্রোডাক্ট, সার্ভিস বা প্রতিষ্ঠানের প্রচারণা চালান একজন ডিজিটাল মার্কেটার। সহজভাবে বলতে গেলে অনলাইনের মাধ্যমে কোন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পূর্ণ বাক্যে প্রচার বা প্রসার করাকেই সাধারণত বলা হয়ে থাকে ডিজিটাল মার্কেটিং। বর্তমানে ডিজিটাল মার্কেটিং হচ্ছে জনপ্রিয় একটি ব্যবসা টেকনিক।

🔵 অনলাইনে যতগুলি সেক্টর রয়েছে তার মধ্যে ডিজিটাল মার্কেটিং অন্যতম। এটি একটি বৃহৎ শাখা এবং এর অনেকগুলো শাখা-প্রশাখা রয়েছে। যেমনঃ-

✅ সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন

সার্চ ইঞ্জিন মার্কেটিং

✅ সোশ্যাল মিডিয়া অপটিমাইজেশন

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং

✅ ই-মেইল মার্কেটিং

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং

✅ মার্কেটিং স্ট্র্যাটেজি

✅ সিপিএ মার্কেটিং

✅ ইনফ্লুয়েন্সের মার্কেটিং

 

🔴 ক্যারিয়ার হিসেবে ডিজিটাল মার্কেটিং

ব্যক্তিগত আগ্রহ, দক্ষতা, অভিজ্ঞতা আর প্রয়োজনসাপেক্ষে একজন ডিজিটাল মার্কেটার সব ডিজিটাল মাধ্যম বা নির্বাচিত কয়েকটি মাধ্যম নিয়ে কাজ করে নিজের ক্যারিয়ার গড়তে পারবেন। এক্ষেত্রে দুইভাবে ডিজিটাল মার্কেটিং-এ ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগ রয়েছে – ♦ চাকারি ফ্রিল্যান্সিং। 

সারা বিশ্বে ডিজিটাল মার্কেটারদের কাজের চাহিদা থাকার কারণে  আপনি ফ্রিল্যান্সিংয়ে এ সেক্টরে ক্যারিয়ার গড়তে পারেন।Upwork ♦ Freelancer ♦ Fivrr এসব মার্কেটপ্লেসে খুব ভালোভাবে কাজ করতে পারেন। প্ল্যাটফর্মগুলো ছাড়াও স্পেশালাইজড প্ল্যাটফর্ম রয়েছে, যেখানে আপনি ডিজিটাল মার্কেটিংয়ে ফ্রিল্যান্সিং প্রজেক্ট খুঁজে পেতে পারেন।

 

🔴 কোনো প্রতিষ্ঠানে ডিজিটাল মার্কেটার হিসেবে চাকরিও করতে পারেন। সেক্ষেত্রে আপনাকে  যা করতে হবে তা হলো:-

 

🔹 ডিজিটাল মাধ্যমগুলোর জন্য মার্কেটিং পরিকল্পনা বানানো,

🔹 প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইটে কন্টেন্ট আপলোড আপডেট করা,

🔹 সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইলে পোস্ট করা ইউজারদের সাথে যোগাযোগ রাখা,

🔹 মার্কেটিং কন্টেন্ট যেমন, ব্লগ পোস্ট গ্রাফিকস তৈরিতে সাহায্য করা,

🔹 ইমেইল মার্কেটিং ক্যাম্পেইন চালানো,

🔹 ক্লায়েন্ট, অ্যাফিলিয়েট নেটওয়ার্ক পার্টনারদের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করা,

🔹 পেইড মিডিয়া (Paid Media) বা বিজ্ঞাপনের দায়িত্ব নেয়া প্রয়োজনে বিজ্ঞাপন এজেন্সির                         সাথে কাজের সমন্বয় রাখা,

🔹 মার্কেটিং অ্যানালিটিক্স যেমন, সোশ্যাল মিডিয়া পারফরম্যান্স নিয়ে কাজ করা,

      সেলস মার্কেটিং রিপোর্ট তৈরি করা

 

🔴 কেন ট্রেনিং নিবেন?

কোর্স বা ট্রেনিং করার সুবিধা হলো, সব রিসোর্স এক জায়গায় গোছানো অবস্থায় পাবেন। এছাড়া, কোনো সমস্যায় পড়লে ইন্সট্রাক্টরের কাছ থেকে সাহায্য পাওয়া সম্ভব। সাথে থাকে প্রফেশনাল নেটওয়ার্কিংয়ের সুযোগ। আবার অনলাইন কোর্সের বেলায় নিজের মতো শেখা যায়। যাবতীয় কাজ প্র্যাকটিক্যাল প্রজেক্টের মাধ্যমে শিখতে পারবেন। 

 

🔴 যেখানে ট্রেনিং নিবেন-

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যশনাল প্রফেশনাল ট্রেনিং ইনস্টিটিউট

৬৪/৬, লেকসার্কাস, পান্থপথ (রাসেল স্কয়ার), কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫ ।

 

🔵 কেন ড্যাফোডিল থেকে ডিপ্লোমা কোর্স করবেন?

🔹 ভেন্ডর সার্টিফাইড ইন্ডাস্ট্রি এক্সপার্ট ট্রেইনার।

🔹 অনলাইন/ অফলাইন উভয় এডুকেশন প্লাটফর্মে ক্লাস করার সুযোগ।

🔹 ৩টি শিফটে (সকাল/বিকাল/সান্ধ্যকালীন) ক্লাসের করার সুযোগ।

🔹 ইন্টারন্যাশনাল মার্কেটপ্লেস ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজ করার সুযোগ।

🔹  BTEB, NTVQF এবং NSDA কর্তৃক সার্ঠিফাইড হওয়ার সুযোগ।

 

Apply Online: http://admission.dipti.com.bd/

Call / WhatsApp: 01713493267, 01713493233