Blog

বর্তমান সময়ে গ্র্যজুয়েশন শেষ করতে সময় লাগে ৪ বছর। আবার অনেক সময় সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সেশনজটের কারণে কোর্স শেষ করতে সময় লাগে ৬-৭ বছর। কিন্তু কর্মমুখী শিক্ষায় আপনি ১ বছরের একটি কোর্স করে গড়ে নিতে পারেন আপনার ভবিষ্যৎ।

বর্তমানে বিভিন্ন আর্কিটেকচারাল ফার্ম, রিয়েল এস্টেট কোম্পানি, ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ফার্ম, পেইন্ট কোম্পানিসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ইন্টেরিয়র ডিজাইনারদের চাহিদা বাড়ছে। নিত্যনতুন এসব কর্মক্ষেত্রে নিজেদের যুক্ত করে অনেকেই সফলভাবে তাদের ক্যারিয়ার গড়ে তুলছেন। এছাড়া প্রতিটি স্থানকে কাজে লাগিয়ে আসবাব, লাইট, গৃহসজ্জা সামগ্রীর যথাযথ ব্যবহারের মাধ্যমে বাড়ি, অফিস বা যে কোনো প্রতিষ্ঠানকে আরামদায়ক ও নান্দনিকভাবে উপস্থাপন করে ইন্টেরিয়র ডিজাইনাররা সফলতা অর্জন করছেন। আর এসব কারনেই বর্তমানে একজন প্রফেশনাল ইন্টেরিয়র ডিজাইনারের চাহিদা তুঙ্গে।

বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বদলে যাচ্ছে সব কিছু। ইন্টেরিয়র ডিজাইনিং একটি বহুমাত্রিক পেশা, যেখানে সৃজনশীলতা ও প্রযুক্তি একসঙ্গে প্রয়োগ করা হয়। এর মূল লক্ষ্য হলো বাসা ও কর্মক্ষেত্রের সাজসজ্জাকে আরও আকর্ষণীয় করে তোলা।

সুন্দর গোছানো একটি ঘর কে না ভালবাসে? ঘরকে রঙিন করতে কার না ভালো লাগে? রঙের ব্যবহার, আসবাবপত্র, কাপড় গৃহসজ্জার উপকরণের সামগ্রিকতাকে ব্যবহার করে ঘর, অফিস সুন্দর করাই হচ্ছে ইন্টেরিয়র ডিজাইনিং।

একটা সময় ছিল, আমাদের দেশে স্থপতিরাই কোনো ভবন নির্মাণের পাশাপাশি তার ইন্টেরিয়র ডিজাইনও করতেন। কিন্তু বর্তমানে আর্কিটেকচার ও ইন্টেরিয়র ডিজাইন পৃথকভাবে করা হয়। ফলে তরুণরা এ ক্ষেত্রটিতে নিজেদের যুক্ত করে গড়ে তুলেছেন সম্ভাবনাময় ক্যারিয়ার। কর্মমুখী শিক্ষায় স্বল্পমেয়াদি বিভিন্ন কোর্স করে আপনিও গড়তে পারেন স্বপ্নের ভবিষ্যৎ। অন্যের অধীনে চাকরি না করেও গড়ে তুলতে পারেন স্বতন্ত্র সেবাধর্মী ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। আর এসব কর্মমুখী শিক্ষার মধ্যে বর্তমানে চাকরির বাজারে এগিয়ে ইন্টেরিয়র ডিজাইন।

সমসাময়িক প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশে ইন্টেরিয়র ডিজাইন কোর্সটির খুবই চাহিদা। এইচএসসি পাস করে যে কেউ ইন্টেরিয়র ডিজাইনিং কোর্সটি করতে পারেন। ইন্টেরিয়র ডিজাইনার হওয়ার প্রথম ও প্রধান শর্ত হলো, সৃষ্টিশীল চিন্তাভাবনা করার মানসিকতা থাকতে হবে। সেই সঙ্গে থাকতে হবে সূক্ষ্ম পরিকল্পনা করার মানসিকতা। একজন সত্যিকারের পেশাদার ডিজাইনারকে পারিপার্শ্বিক পরিবেশ, বাসা বাড়ি, অফিস আদালত, খেলার ময়দান ইত্যাদি স্থানকে নিজের চিন্তা-কল্পনা, গবেষণা, সৃজনশীলতা ও আপন মনের মাধুরী মিশিয়ে আরো আকর্ষণীয়ভাবে ফুটিয়ে তোলেন।

ইন্টেরিয়র ডিজাইন বিষয়ে সবথেকে প্রাকটিক্যাল কাজ ভালোভাবে শিখতে হলে কোন ট্রেনিং সেন্টারে ভর্তি হতে পারেন। কেননা ট্রেনিং সেন্টারগুলো প্রাকটিক্যাল এবং স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক মার্কেটগুলোর চাহিদা অনুযায়ী প্রশিক্ষণার্থীকে দক্ষ করে তোলে।এক্ষেত্রে সবচেয়ে ভালো দেশের শীর্ষ আইটি প্রশিক্ষণ প্রদানকারি প্রতিষ্ঠান ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল প্রফেশনাল ট্রেনিং ইনস্টিটিউট (দীপ্তি)

যোগাযোগে: ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল প্রফেশনাল ট্রেনিং ইনস্টিটিউট (দীপ্তি), ৬৪/৬, লেকসার্কাস, পান্থপথ (রাসেল স্কয়ার), কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫। ফোনঃ ৯১৩৪৬৯৫, ০১৭১৩৪৯৩২৬৭ এবং০১৭১৩৪৯৩২৩৩  

Web: http://www.dipti.com.bd ;

Leave a Reply